মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতির দাবি শেরপুরে লিয়াকত আলী লেবু’র

মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতির দাবি শেরপুরে লিয়াকত আলী লেবু’র

মানিক দত্ত:১৯৭১ সালে ৭ই এপ্রিল মুজিব নগরে বাংলাদেশের প্রথম সরকার ঘোষণা অনুষ্ঠানের মঞ্চ তৈরীসহ অনুষ্ঠানের যাবতীয় কাজ করার সাথে জড়িত লিয়াকত আলী লেবুসহ ৬০জন মুক্তিযোদ্ধার হিসেবে স্বীকৃতি প্রদানের দাবিতে শেরপুরে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (৫ ডিসেম্বর) দুপুরে শেরপুর প্রেসক্লাবে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মো. লিয়াকত আলী লেবু। তিনি বলেন, ১৯৭১ সালে মেহেরপরের মুজিবনগর উপজেলার ভবর পাড়া মিশনারী স্কুলে পড়ালেখা করার সুবাদে আমরা স্কুলের বন্ধুরা মিলে সেখানে রাজাকারদের অবস্থানের তথ্য দিয়ে মুক্তিযোদ্ধাদের সহায়তা করতাম। তৎকালীন মিশনারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক মি: লুইচ মন্ডল বাংলাদেশের প্রথম গঠিত সরকারের ঘোষণা মঞ্চ তৈরি করতে আমিসহ আমার বন্ধুরা মঞ্চ তৈরিতে অংশ নেয়। পরে ওই মঞ্চেই বাংলাদেশের প্রথম সরকার ঘোষণা করা হয়। ওই সময় অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে ইতোমধ্যে কয়েকজনের মুক্তিযুদ্ধ হিসেবে স্বীকৃতি প্রদান করলেও আমিসহ আমাদের ৬০জন এখনো মুক্তিযুদ্ধের স্বীকৃতি পায়নি। বর্তমানে দেশে মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের সরকার ক্ষমতায়। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আমিসহ আমার সাথে ৬০জন কাজ করেছে তাদেরকে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতি প্রদান করার দাবি জানাই।

সংবাদ সম্মেলনে শেরপুর প্রেসক্লাবের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জিএম আজফার বাবুল, সাধারণ সম্পাদক মেরাজ উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক মানিক দত্ত, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আদিল মাহমুদ উজ্জলসহ শেরপুরে কর্মরত সকল প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিকস মিডিয়া সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.