হাসপাতালগুলোতে বাড়ছে ঠান্ডাজনিত রোগে আক্রান্তের সংখ্যা

হাসপাতালগুলোতে বাড়ছে ঠান্ডাজনিত রোগে আক্রান্তের সংখ্যা

নিউজ ডেস্ক:সারাদেশেই কমতে শুরু করেছে তাপমাত্রা। শীতের সঙ্গে সঙ্গে রাজধানীর হাসপাতালগুলোতে বাড়ছে ঠান্ডাজনিত রোগে আক্রান্তের সংখ্যা। সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে শিশুরা।

চিকিৎসকরা বলছেন, আগে যেখানে প্রতিদিন এক থেকে দেড়শো রোগী আসতো, এখন সেই সংখ্যা তিনশো ছুঁইছুঁই। করোনার এই সময়টাতে বাড়তি সতর্কতার পরামর্শ তাদের।

পেশায় গাড়িচালক ফারুক চারদিন আগে সন্তানের শ্বাসকষ্ট নিয়ে ভর্তি হয়েছেন ঢাকা শিশু হাসপাতালে। পরীক্ষা করে জানা যায়, শিশুটি নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত। তার মতো আরো অনেক বাবা-মা সর্দি, জ্বর, কাশি ও ডায়রিয়াসহ শীতজনিত নানা রোগে আক্রান্ত শিশুদের নিয়ে এসেছেন হাসপাতালে।

এ বিষয়ে শিশুটির মা বলেন, বাচ্চার শ্বাসকষ্ট সঙ্গে বুকে প্রচণ্ড ব্যথাও শুরু হয়। এ জন্য বাচ্চাকে নিয়ে হাসপাতালে এসেছি। পরে ডাক্তারের পরামর্শে এখানে ভর্তি করিয়েছি।

শিশুদের শরীর উষ্ণ রাখার পাশাপাশি অভিভাবকদের বাড়তি নজর দেয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন চিকিৎসকরা। এ বিষয়ে এক চিকিৎসক বলেন, শিশুটির দিকে খেয়াল রাখতে হবে, এবং বাসাতে সব সময় তাকে কাপড় দিয়ে জড়িয়ে রাখতে হবে। শিশু কোন অবস্থায় যেনো ভেজা না থাকে, সেদিকে সব সময় মনিটরিং করতে হবে। তাহলে ঠাণ্ডার সমস্যা থেকে কিছুটা হলেও শিশুদের ভালো রাখা যাবে।

আগে প্রতিদিন গড়ে একশ থেকে দেড়শ রোগী হাসপাতালে আসলেও শীত বাড়ার সাথে সাথে প্রতিদিন এখন আড়াইশো থেকে তিনশো শিশু শীতকালীন বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে আসছে হাসপাতালে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!