শেরপুরে সম্ভাব্য প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণার বিলবোর্ড, পোস্টার ও ফেস্টুন সরাতে আগাম মাইকিং

শেরপুরে সম্ভাব্য প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণার বিলবোর্ড, পোস্টার ও ফেস্টুন সরাতে আগাম মাইকিং

বুলবুল আহম্মেদ শেরপুর:আসন্ন শেরপুর পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে সম্ভাব্য প্রার্থীদের শহর জুড়ে প্রচার-প্রচারণার বিলবোর্ড, পোস্টার ও ফেস্টুন। এসব সরিয়ে নিতে শেরপুর জেলা নির্বাচন অফিস আগাম মাইকিং এর মাধ্যমে সতর্কতা করে যাচ্ছেন। এ উপলক্ষে ২১ ডিসেম্বর মঙ্গলবার সকাল থেকে রাত্রি পর্যন্ত জেলা নির্বাচন অফিসের সতর্কতামূলক আগাম প্রচারনার অংশ হিসেবে মাইকিং লক্ষ্য করা গেছে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, শহরের বিভিন্ন সড়কে সম্ভাব্য প্রার্থীদের বড় বড় বিলবোর্ড এখনও ঝুলছে। বিভিন্ন মহল্লায় বিদ্যুতের খুঁটিতে সাঁটানো আছে ছোট ছোট রকমারি ফেস্টুন। দেওয়ালে দেওয়ালে রয়েছে রঙিন পোস্টার। এসবের বেশির ভাগই ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও বি এন পি থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের। এমনকি স্বতন্ত্র প্রার্থীদেরও রয়েছে চোখে পরার মতো।
তবে নিয়ম অনুযায়ী তফসিল ঘোষণার পর এবং প্রতীক বরাদ্দের আগ মুহূর্ত পর্যন্ত কোনো প্রার্থী নির্বাচনি প্রচার-প্রচারণায় অংশ নিতে পারবে না।

জেলা নির্বাচন অফিসসূত্রে জানা গেছে, তফসিলের আগেই সম্ভাব্য প্রার্থীদের সাঁটানো ব্যানার, পোস্টার, ফেস্টুন ও বিলবোর্ড নামিয়ে নেওয়ার জন্য আগাম মাইকিং চালাচ্ছেন নির্বাচন অফিস। সম্ভাব্য প্রার্থী ও প্রার্থী পক্ষে যেসব ব্যক্তি পোষ্টার, ব্যানার, ফেস্টুনসহ নানা ধরনের তোড়ন স্থাপন করেছেন তাদের আগামী ৭দিনের মধ্যে নিজ দ্বায়িত্বে ওইসব অপসারণ করার জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন জেলা নির্বাচন অফিস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!