শেরপুর পৌর নির্বাচন: আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী মেয়র প্রার্থীকে বহিস্কারের দাবি তুলে সংবাদ সম্মেলন

শেরপুর পৌর নির্বাচন: আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী মেয়র প্রার্থীকে বহিস্কারের দাবি তুলে সংবাদ সম্মেলন

স্টাফ রিপোর্টার:চতুর্থ ধাপে অনুষ্ঠিত শেরপুর পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী মেয়র প্রার্থী, জেলা আওয়ামীলীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক এডভোকেট মোঃ রফিকুল ইসলাম আধারের দলীয় সিদ্ধান্ত আমলে না নিয়ে নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করায় তার বিষয়ে সাংগঠনিক ব্যাবস্থা গ্রহণের দাবি তুলে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে। ৩০ জানুয়ারি শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় শেরপুর সড়ক ও জনপথ বিভাগের রেষ্ট হাউজে এ সংবাদ সম্মেলন করা হয়।

শেরপুর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক-১ মোঃ হুমায়ুন কবীর রুমান এর স্বাক্ষরিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগ সদস্য মোঃ ছানুয়ার হোসেন ছানু।

এসময় তিনি উপস্থিত গণমাধ্যমকর্মীদের বলেন, আসন্ন শেরপুর পৌরসভা নির্বাচনে মনোনয়নের জন্য আমরা অনেকে শেরপুর থেকে ঢাকা কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে এডভোকেট মোঃ রফিকুল ইসলাম আধারের জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করেছি, নৌকা মার্কা পাওয়ার জন্য।

এডভোকেট মোঃ রফিকুল ইসলাম আধারের সাথে প্রার্থীতা ঘোষণার আগে কথা হয়েছিল দলীয় মনোনয়ন পেলে সে নির্বাচন করবে। আর যদি মনোনয়ন না পায় তাহলে শেরপুর পৌরসভার নৌকা মার্কা মনোনয়ন যে পাবে আধারসহ আমরা সকলে মিলে নির্বাচন করে বিজয়ের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করবো।

এমতাবস্থায় এডভোকেট মোঃ রফিকুল ইসলাম আধার জেলা আওয়ামীলীগসহ আমাদের সকল কেই উপেক্ষা করে প্রার্থী হয়েছে। পাশাপাশি তার দলীয় পদসহ আমাদের সকলের নামে অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি।

আমরা বঙ্গবন্ধু কর্মী, জননেত্রী শেখ হাসিনা আওয়ামীলীগের প্রিয় সভানেত্রী তার সিদ্ধান্ত বাইরে যাওয়ার কোন সুযোগ নেই। শোনা যাচ্ছে আমাদের নাম ভাঙ্গিয়ে বিভিন্ন জায়গায় আওয়ামীলীগ বিদ্রোহী মেয়র প্রার্থী এডভোকেট আধার অপপ্রচার চালাচ্ছেন।

তাই শেরপুর জেলা আওয়ামীলীগের কাছে জোড় দাবি জানাচ্ছি যে দ্রুততম সময়ের মধ্যে জেলা আওয়ামীলীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক পদ ও আওয়ামীলীগের প্রাথমিক সদস্য পদ থেকে এডভোকেট মোঃ রফিকুল ইসলাম আধারকে বহিস্কার করার দাবি জানায়।

সংবাদ সম্মেলনে এসময় অন্যান্যদের মধ্যে জেলা আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালেক, জেলা আওয়ামীলীগ সাবেক সহ-সভাপতি এডভোকেট বীর মুক্তিযোদ্ধা আখতারুজ্জামান, শেরপুর জেলা মহিলা আওয়ামীলীগ সভাপতি শামছুন্নাহার কামাল, জেলা আওয়ামীলীগ সাবেক সমাজকল্যাণ সম্পাদক তাপস কুমার সাহা, কৃষকলীগ শেরপুর জেলা শাখার সভাপতি মোঃ আব্দুর কাদির, সহ সভাপতি জয়নাল আবেদীন হাজারী, জেলা যুবলীগ নেতা আব্দুল মতিন, শেরপুর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোঃ নাজমুল হোসেন সম্রাটসহ প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!