স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী সুইটের নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষনা

স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী সুইটের নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষনা

স্টাফ রিপোর্টার: রাত পেরােলেই ১৪ ফেব্রুয়ারি শেরপুর ও শ্রীবরদী পৌরসভা নির্বাচন শুরু হতে যাচ্ছে। এরই মধ্যে শেরপুর পৌরসভা নির্বাচন নিয়ে মোবাইল ফোন প্রতীকের স্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থী সুইট নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছেন।

শুক্রবার রাত ৮ টায় দিকে কলেজ মোড়ের রাজবাড়ী মহল্লায় তার প্রধান নির্বাচনী কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেন। এতে লিখিত বক্তব্যে তিনি ২০টি ইশতেহার ঘোষণা করেন স্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থী সুইট।

ইশতেহারে ড্রেনেজ ব্যবস্থা আধুনিকরণে সর্বাদিক গুরুত্ব প্রদান, বর্জ্য নিষ্কাষণ ও ব্যবস্থাপনা আধুনিকরণ, যানজট নিরশন ও পৌর রাস্থা সংরক্ষণ, যুব সমাজকে মাদকের ভয়াবহ থাবা থেকে রক্ষা করার জন্য খেলার মাঠের ব্যবস্থা করে ক্রীড়া ও সাহিত্য সাংস্কৃতিক কার্য্ক্রম জোড়দারকরণসহ বিভিন্ন বিষয় স্থান পায়।

ইশতেহারের বিষয়ের মধ্যে কিছু বিষয়- ১. শেরপুর পৌরসভার সকল কবরস্থান, শশান মসজিদ ও মন্দিরের সর্বচ্চ উন্নয়ন,
২. পৌরসভার বসবাসরত সকল বেকার পুরুষ মহিলাদের ড্রাইভিং, কম্পিউটার ও সেলাই ট্রেনিংয়ের সুব্যবস্থা।
৩. পৌরসভার ভোটারসহ রিক্সা ও পৌরকর কমানো হবে।
৪.পৌরসভায় নির্দিষ্ট স্থানে যাত্রী ছাওনি করা হবে।
৫. পৌরসভায় বসবাসরত সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কর্মীদের জন্য মুক্ত মঞ্চ করা হবে।
৬. নারী নির্যাতন ইভটিজিং শিশু নির্যাতন মাদকসহ অন্যান্য অপরাধ নিয়ন্ত্রণে জিরো টলারেন্স কল সেন্টার করা হবে।
৭. নবীনগর রোডে অবস্থানরত ডাস্টবিন সরিয়ে নির্দিষ্টস্থানে নেওয়া এবং আধুনিক প্রযুক্তিতে অপসারণ করা হবে।
৮. শহরের সকল ড্রেন তিন মাস অন্তর অন্তর পরিষ্কার করা হবে এবং কাল পূণরুদ্ধার সংস্কার এবং দখলমুক্ত করা হবে।
৯. ভেজাল বিরুধী অভিযান চলমান থাকবে।
১০. পৌরসভা থেকে অশ্লীল পোষ্টার ব্যানার বিলবোর্ড অপসারণ করা হবে ।প্রভৃতি।

নির্বাচনে সুষ্ঠ পরিবেশ বজায় থাকলে মোবাইল ফোন বিজয় লাভ করবে বলে এমনটাই আশা প্রকাশ করেন স্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থী সুইট।

Leave a Reply

Your email address will not be published.