শেরপুরে মারুফ নামে এক কিশোরের লাশ উদ্ধার

শেরপুরে মারুফ নামে এক কিশোরের লাশ উদ্ধার

বুলবুল আহম্মেদ:শেরপুর পৌরসভার ঢাকলহাটি মহল্লার আরবি রাইস মিলের গোডাউনের চালের উপর থেকে মারুফ (১৪) নামে এক কিশোরের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। রবিবার (৪এপ্রিল) সকালে স্থানীয় লোকেদের খবরের ভিত্ততিতে পুলিশ ওই কিশোরের লাশ ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করেন।
পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে মারুফ বাড়িতে ভাত খায়। পরে তার মুঠোফোনে জরুরি কল আসলে সে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান। রাত গভীর হলেও মারুফ বাড়িতে না আসলে আমরা পরিবার থেকে অনেক খোঁজাখুঁজি করি। তাকে না পেয়ে ওই রাতেই আমরা বাড়িতে এসে পরি। পরবর্তী আজ রবিবার সকালে স্থানীয় লোকজনের কাছে শুনতে পায় আরবি রাইস মিলে একটি লাশ পাওয়া গেছে। দৌড়ে দেখতে গিয়ে দেখি আমার ছেলে মারুফের লাশ পড়ে আছে। আমাদের ধারনা কেউ ঢেকে নিয়ে মারুফকে মেরে ফেলেছে। এমন রহস্যজনক মৃত্যুর সঠিক তদন্তের দাবি জানাচ্ছি।

স্থানীয়রা জানান, মারুফ একজন নিরিহ প্রক্রিতির ছেলে তার সাথে এলাকার কারও ঝগড়া কিংবা বিরোধ ছিলোনা। মারুফ কখনো এই আরবি রাইস মিলে গিয়েছে আমরা দেখিনি। এটি একটি সন্দেহজনক মৃত্যু। যেখানে মৃতদেহটি পাওয়া গিয়েছে মেইন গেইট ব্যতীত ওইখানে বিকল্প কোন রাস্তা নেই। তাই আমরা মনে করছি মারুফকে যদি কেউ সেখানে নিয়ে যায় তাহলে মেইন গেইট হয়ে নিয়েছে।পুরো রাইস মিল সিসিক্যামেরা দ্বারা নিয়ন্ত্রনে থাকলেও কর্তৃপক্ষ বলছেন তা নষ্ট অবস্থায় রয়েছে।
এদিকে কর্তব্যরত পাহাড়াদার অকিল চন্দ্র ডালু বলছেন আমি রাত্রি ২ টা পর্যন্ত কাউকে এ গেট দিয়ে যাইতে দেখিনি এবং কি কোন শব্দ শুনতে পায়নি।
স্থানীয়রা আরো জানান, এই মিলে প্রতিবছরই একটা না একটা বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটে।
এ পর্যন্ত একই স্থানে প্রায় ৫ থেকে ৭ জন গুরুত্বর আহত ও পঙ্গুত্ব বরন করেছেন। কর্তৃপক্ষ গুরুত্ব না দেওয়ায় প্রতিবছর বিদ্যুতের লাইনের মাধ্যমেই একেকটি পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন। যাহারা পঙ্গুত্ব বরন করেছেন তারা হলেন এই মিলের পাহারাদার মিরন, রাজমিস্ত্রি সিদ্দিক মিয়া, ট্রলি ড্রাইভার রাজু আহমেদ, সিটিংমিস্ত্রি আল-আমীন ও শাওন মিয়া। এদিকে প্রত্যেককে ক্ষতিপূরন বাবদ আর্থিক সহযোগিতাও করেছেন মিল মালিক কর্তৃপক্ষ। তাদের এমন অলসতা ও দায়িত্বহীনতার ফলেই এ দুর্ঘটনাটি ঘটেছে।
এদিকে বিদ্যুৎ বিভাগ পিডিপি কর্মকর্তা বলছেন আমি শেরপুরের বিদ্যুৎ বিভাগে প্রায় ২ বছর যাবত রয়েছি এই মিলে এমন সমস্যার কথা কখনো শুনিনি আমাদের কাউকে কখনো অবগত করা হয়নি। আমরা জানলে অবশ্যই সমস্যা সমাধান করতাম।

আরবি রাইস মিলের মালিক জানান, আমরা এর কিছুই জানিনা। তবে ধারনা করা হচ্ছে বিদ্যুৎতিক শর্টে এমন ঘটনা ঘটতে পারে।

এব্যাপারে শেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল থেকে মারুফ এর লাশ উদ্ধার করেছি। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট শেষে বলা যাবে এটি কিসের মৃত্যু। তবে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে বিদ্যুতের শর্টে তার মৃত্যু হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!