ব্রেন টিউমারে আক্রান্ত শিশু সন্তান মাহিদের সুস্থ হওয়ার জন্য প্রয়োজন ৪ লক্ষ টাকা

ব্রেন টিউমারে আক্রান্ত শিশু সন্তান মাহিদের সুস্থ হওয়ার জন্য প্রয়োজন ৪ লক্ষ টাকা

স্টাফ রিপোর্টার:ব্রেন টিউমারে আক্রান্ত শিশু মাহিদ (৩) সুস্থ হয়ে ফিরতে চায় মা-বাবার কোলে। মাহিদ শেরপুর পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের দিঘারপাড় মহল্লার রুকনুজ্জামান শাহীন ও হামিদা পারভিন দম্পতির ছেলে। মাহিদ বর্তমানে রাজধানী ঢাকার শের-ই-বাংলা নগরের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্স ও হাসপাতালে ভর্তি আছে।

এব্যাপারে মাহিদের বাবা শাহীনের সাথে মুঠোফোন যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, আমি সাধারণ একটি দরিদ্র পরিবারের ছেলে। ছোট একটি প্রতিষ্ঠানে অল্প বেতনে চাকরী করি। এখন আমার ছেলে মাহিদের চিকিৎসার জন্য ৪ লক্ষাধিক টাকা প্রয়োজন। যা আমার ও পরিবারের পক্ষে যোগাড় করা কোন ভাবেই সম্ভব না। এখন টাকার চিন্তাই আমরা দিশেহারা।

মাহিদের মা হামিদা পারভিন জানান, প্রত্যেক শিশুই তার মা-বাবার কাছে অমূল্য ধন। যে ছেলে চোঁখের সামনে হাসিখুশি থাকতো, খেলাধূলা করতো। সে এখন হাসপাতেলে বেডে শুয়ে আছে। এরকম দৃশ্য দেখে আমি নিজেকে ঠিক রাখতে পারছি না। ডাক্তার বলেছেন দ্রুত মাহিদের অপারেশন করাতে। কিন্তু টাকার ব্যবস্থা না হওয়ায় আমরা বারবার পিছিয়ে পরছি। ৪ লক্ষ টাকা ব্যবস্থা করতে পারলে হয়তো আগামী ২৫ মে মাহিদের অপারেশন হবে।এব্যাপারে আইন ও মানবাধিকার সুরক্ষা ফাউন্ডেশন শেরপুর জেলা শাখার সভাপতি আরিফুল ইসলাম অপু বলেন, শিশু মাহিদকে সুস্থ করে ফিরিয়ে দিতে আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছি। ইতিমধ্যে আমরা একটি কমিটি গঠন করে, ভাগ হয়ে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষের কাছে যাচ্ছি আর্থিক সাহায্যের জন্য।

স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আজকের তারণ্যর শেরপুর জেলার সভাপতি রবিউল ইসলাম রতন বলেন, মাহিদ এখন শের-ই-বাংলা নগরের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্স ও হাসপাতালে সহযোগী অধ্যাপক ডা. আমিনুল ইসলামের তত্বাবধানে আছে। তার শারীরিক অবস্থা খুব একটা ভাল না। আমি আমাদের সংগঠনের পক্ষ হতে জেলা শহরের বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও বিপনী বিতাণ গুলোতে আর্থিক সহযোগীতার আবেদন নিয়ে যাচ্ছি।

যোগাযোগের জন্য শিশু মাহিদের বাবা শাহীন, মোবাঃ ০১৬৪৮-১১১৪৫৪

Leave a Reply

Your email address will not be published.