শেরপুরের নকলায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে যুবক গ্রেপ্তার-সত্যবয়ান

শেরপুরের নকলায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে যুবক গ্রেপ্তার-সত্যবয়ান

নকলা প্রতিনিধিঃ শেরপুরের নকলায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক সপ্তম শ্রেনির স্কুলছাত্রীকে (১৫) ধর্ষণের অভিযোগে দেলোয়ার হোসেন (২২) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তিনি উপজেলা সদরের কুর্শাবাদাগৈড় দড়িপাড়া গ্রামের হেলাল উদ্দিন আহাম্মদের ছেলে।
১ জুন মঙ্গলবার দুপুরে ধর্ষণের শিকার ভুক্তভোগী কিশোরী নিজেই বাদী হয়ে দেলোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে নকলা থানায় মামলা করে। নকলা পৌর শহরের একটি বাড়িতে বিভিন্ন সময়ে ওই কিশোরীকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। মঙ্গলবার বিকেলে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহসিনা হোসেন তুষির আদালতের নির্দেশে গ্রেপ্তার তাঁকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রী ও দেলোয়ার প্রতিবেশী হওয়ার সুবাদে দেলোয়ার বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই কিশোরীকে বিভিন্ন সময়ে তাঁর বাড়ির গোয়ালঘরে ডেকে নিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করেন। সর্বশেষ গত ৩০ মে রোববার রাতে দেলোয়ার কিশোরীটিকে তাঁর বাড়ির গোয়াল ঘরে পুনরায় ধর্ষণ করেন। পরে ভুক্তভোগী কিশোরী তার বাবা-মাকে ধর্ষণের ঘটনাটি খুলে বলে। এরপর প্রতিবেশীদের সহায়তায় ভুক্তভোগী কিশোরী তার অভিভাবকদের নিয়ে মঙ্গলবার দুপুরে নকলা থানায় আসে এবং দেলোয়ার হোসেনকে আসামি করে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করে।
নকলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মুশফিকুর রহমান বলেন, মামলা দায়েরের পর গ্রেপ্তার দেলোয়ারকে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আগামীকাল বুধবার জেলা সদর হাসপাতালে ধর্ষণের শিকার কিশোরীর ডাক্তারী পরীক্ষা করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.