নালিতাবাড়ীতে হালখাতার কার্ড দিতে গিয়ে দেনাদারের মারধরে যুবক খুন

নালিতাবাড়ীতে হালখাতার কার্ড দিতে গিয়ে দেনাদারের মারধরে যুবক খুন

নালিতাবাড়ী প্রতিনিধি:শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে বড় ভাইয়ের মুদী দোকানের পাওনা আদায়ে হালখাতার কার্ড বিতরণ করতে গিয়ে দেনাদারের মারধরের শিকার যুবক শাহাদুল (২৫) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে। গত ২৩ মে রবিবার উপজেলার কলসপাড় সাতানিপাড়ায় মারধরের ঘটনার পর শুক্রবার (৪ জুন) সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় শাহাদুল। নিহত শাহাদুল ওই গ্রামের সুরুজ্জামানের ছেলে।

পুলিশ জানায়, শাহাদুলের ভাই মুদী ব্যবসায়ী স্থানীয় রফিকুল নয়ন নামে একজনের কাছে পচিশ হাজার টাকা পায়। ওই পাওনা টাকা আদায়ের জন্য গত ২৩ মে রবিবার বেলা এগারোটার দিকে শাহাদুলকে একটি হালখাতার কার্ড দিয়ে নয়নের কাছে পাঠায়। হালখাতার কার্ড দিতে গেলে নয়ন এ নিয়ে শাহাদুলের সাথে তর্কে জড়ায়। একপর্যায়ে নয়ন তার লোকজন নিয়ে শাহাদুলকে বেধরক মারধর করে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় শাহাদুলকে প্রথমে শেরপুর সদর হাসপাতাল ও পরে ময়মনসিংহ এবং এরপর ঢাকা মেডিকেল কলেজে অপারেশন শেষে বাড়ি নিয়ে আসে। ২৯ মে বাড়ি আনার পর শারিরিক অবস্থার অবনতি হলে সেদিনই তাকে পুনরায় শেরপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার সকাল সাড়ে দশটার দিকে শাহাদুল মারা যায়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে নালিতাবাড়ী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বছির আহমেদ বাদল জানান, মারধরের ঘটনায় শাহাদুলের চাচা চাঁন মিয়া মাস্টার বাদী হয়ে নয়নসহ ১৪ জনকে অভিযুক্ত করে ২৩ মে অভিযোগ দায়ের করলে ২৪ মে মামলা নেওয়া হয়। এরমধ্যে ১০ আসামী জামিনে রয়েছে। ওই মামলাটিই এখন হত্যা মামলা হিসেবে গ্রহণ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!