শ্রীবরদীতে স্কুল ছাত্রী অপহরণ মামলার প্রধান আসামী জামালপুর থেকে গ্রেফতার

শ্রীবরদীতে স্কুল ছাত্রী অপহরণ মামলার প্রধান আসামী জামালপুর থেকে গ্রেফতার

শ্রীবরদী প্রতিনিধি: শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলার গড়জরিপা এলাকায় চাঞ্চল্যকর ৮ম শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্রী অপহরণ মামলার প্রধান আসামী জসিম উদ্দিন (২২) কে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় জামালপুর জেলা শহরের বনপাড়া এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছে শ্রীবরদী থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃত জসিম উদ্দিন উপজেলার গড়জরিপা ইউনিয়নের গড়জরিপা গ্রামের আছমত আলীর ছেলে। গত শুক্রবার গভীর রাতে শেরপুর জেলা পুলিশের নালিতাবাড়ী সার্কেলের সিনিয়র এ.এস.পি আফরোজা নাজনীনের দিক নির্দেশনায় শ্রীবরদী থানার ওসি বিপ্লব কুমার বিশ্বাসের নেতৃত্বে এস.আই সাইফুল ইসলাম ও এস.আই কামরুল ইসলামের সঙ্গীয় পুলিশের ২টি টিম জামালপুর সদর থানার পুলিশের সহায়তায় জসিম উদ্দিনকে গ্রেফতার করেন।

পুলিশ জানায়, গত ২৪ শে মে স্কুল ছাত্রীর মা মেয়ে অপহরণের অভিযোগ এনে জসিম উদ্দিন সহ চারজনকে অভিযুক্ত করে শ্রীবরদী থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন। ওসি বিপ্লব কুমার বিশ্বাসের তত্ত্বাবধানে শ্রীবরদী থানার পুলিশের ২টি টিম ২ দিন নারায়ণগঞ্জ জেলার ফতুল্লা ঘুরে অবশেষে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় জামালপুর থেকে অপহরণকারীকে গ্রেফতার ও ভিকটিমকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।

শ্রীবরদী থানার ওসি বিপ্লব কুমার বিশ্বাস ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, মামলা দায়েরের পর থেকেই আমরা বিষয়টি গুরুত্বসহকারে তদন্ত করে আসছি। আমাদের সিনিয়র এ.এস.পি নালিতাবাড়ী মহোদয় মামলাটি সর্বাক্ষনিক তদারকি করে আসছি। তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় আমরা অপহরণকারীকে আটক করি। উদ্ধার করা হয় স্কুল ছাত্রীকে। শুক্রবার অপহরণকারীকে শেরপুর আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। ভিকটিমকে মেডিকেল পরীক্ষা, আদালতের নিকট জবানবন্দি রেকর্ড ও বয়স নির্ধারণের জন্য আবেদন করা হয়েছে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস.আই সাইফুল ইসলাম বলেন, মেয়েটি আমাদের হেফাজতে রয়েছে। পরবর্তীতে আদালতের নির্দেশে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। দীর্ঘদিন পর অপহরণকৃত মেয়েকে কাছে পেয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন স্কুল ছাত্রীর মা হেপী বেগম।

উল্লেখ্য যে, ওসি বিপ্লব কুমার বিশ্বাস শ্রীবরদীতে যোগদান করেই ২টি অপহরণ মামলায় ২ স্কুল ছাত্রীকে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় উদ্ধার করে তার পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!