নকলায় স্বেচ্ছাশ্রমে পাকারাস্তা মেরামত করে সর্বমহলে প্রশংসিত স্থানীয় তরুণ সমাজ-সত্যবয়ান

নকলায় স্বেচ্ছাশ্রমে পাকারাস্তা মেরামত করে সর্বমহলে প্রশংসিত স্থানীয় তরুণ সমাজ-সত্যবয়ান

নকলা (শেরপুর) প্রতিনিধি:শেরপুরের নকলা উপজেলার নকলা-চন্দ্রকোনা রাস্তার ভাঙ্গা অংশ স্বেচ্ছাশ্রমে মেরামত করেছেন দুরন্ত শৈশব নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবক ও এলাকার তরুণ সমাজ। সোমবার (৭ জুন) সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত তারা নকলা-চন্দ্রকোনা রাস্তার জানকীপুর এলাকার ব্রীজের পাশরে বড় একটি ভাঙ্গনসহ বিভিন্ন স্থানের ভাঙ্গা অংশে ও গর্তে মাটি দিয়ে ভরাট করেন। এতে দুরন্ত শৈশবের স্বেচ্ছাসেবক ও স্থানীয় তরুণরা সর্বমহলে প্রশংসিত হয়েছেন।

জানা গেছে, ৬ জুন রবিবার বিকেলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে নাঈম ইসলাম নামে এক তরুণ এ রাস্তার ভাঙ্গা অংশের ছবিসহ বর্তমান অবস্থা তুলে ধরেন। পরে নকলা হাসপাতালের মেডিকেল টেকনোলজিস্ট আবু কাউসার বিদ্যুৎ তার টাইম লাইনে সংশ্লিষ্ট দপ্তর ও স্বেচ্ছাসেবকদের দৃষ্টি আকর্ষন করে মানবিক লেখা পোস্ট করেন। এরপরে শুরু হয় একের পর একজনের টাইম লাইনে পোস্ট করা। বিশেষ করে নকলা উপজেলার সর্ববৃহৎ ফেইসবুক পেইজ আমাদের চন্দ্রকোনা-তে পোস্ট হওয়ার পরে বিষয়টি সর্বমহলে আলোচনায় চলে আসে। ফলে বিষয়টি দুরন্ত শৈশব স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের কর্তৃপক্ষের নজরে আসে। রবিবার রাতেই তারা জরুরি আলোচনা সভা করে রাস্তাটি মেরামতের সিদ্ধান্ত নেয়। সোমবার দুরন্ত শৈশব স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের ফয়সাল আহম্মেদের নেতৃত্বে ওই সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবকরা ভাঙ্গা অংশে মাটি ভরাট করেন।

মাটি দিয়ে ভাঙ্গা রাস্তা ভরাটে যারা স্বেচ্ছায় শ্রম দিয়েছেন তাদের মধ্যে ফয়সাল আহম্মেদ, নাঈম ইসলাম মিটুল, মাহমুদুল হাসান, জাহিদ হাসান, শাকিল আহম্মেদ, সিয়াম, সবুজ, রাব্বি, লিমন, কবির, হৃদয়, আকাশের নাম উল্লেখযোগ্য।

দুরন্ত শৈশবের স্বেচ্ছাসেবক ও স্থানীয় তরুণদের এমহতী কাজ দেখে সন্তুষ্ট হয়ে চন্দ্রকোনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাজু সাঈদ সিদ্দিকী তাদেরকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। তাছাড়া জনস্বার্থে এমন কাজের জন্য দুরন্ত শৈশব নামে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবক ও এলাকার তরুণ সমাজ প্রতি কৃতজ্ঞাতা জ্ঞাপন করেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!