কুমারখালীতে ট্রেনে কেটে গৃহবধূর আত্নহত্যা

কুমারখালীতে ট্রেনে কেটে গৃহবধূর আত্নহত্যা

সামরুজ্জামান সামুন,কুষ্টিয়া:কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ট্রেনের নিচে ঝুঁপ দিয়ে গৃহবধুর আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে।

শনিবার ( ৩ জুলাই ) সকালে কুষ্টিয়ার কুমারখালী রেলস্টেশনের অদূরে মালবাহী ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে সে আত্মহত্যা করে। নিহত গৃহবধু উপজেলার সদকী ইউনিয়নের রামকৃষ্ণপুর গ্রামের সিদ্দিক মন্ডলের মেয়ে মনিরা (২১)।

নিহত গৃহবধূর বাবা সিদ্দিক মন্ডল জানান, ৩ বছর পূর্বে বাটিকামারা তরুন মোড়ের মনির হোসেনের ছেলে জনির সাথে তার মেয়ের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই মাদকাসক্ত জামাই তার মেয়েকে নানাভাবে নির্যাতন করতো। গত ২৮ জুন নির্যাতন সইতে না পেরে মনিরা হারপিক খেয়ে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করে। সেসময় কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তাকে ভর্তি রেখে চিকিৎসা দেয়া হয়। হাসপাতালে ভর্তি থাকা অবস্থায় আজ সকালে সকলের অগোচরে হাসপাতালের অদুরে স্টেশনের নিকটবর্তী স্থান থেকে ট্রেনে ঝাঁপ দিয়ে আত্নহত্যা করে। তিনি আরো বলেন তার মেয়ের একটি শিশু সন্তান রয়েছে।

এ বিষয়ে কুমারখালী থানার অফিসার ইনচার্জ কামরুজ্জামান তালুকদার জানান, ট্রেনে কেটে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। রেলওয়ে পুলিশ লাশ পোস্ট মর্টেমের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.