হলুদ তরমুজ চাষে আগ্রহী কৃষকরা-সত্যবয়ান

হলুদ তরমুজ চাষে আগ্রহী কৃষকরা-সত্যবয়ান

নিজস্ব প্রতিবেদক:উপরে হলুদ আর ভেতরে টকটকে লাল, স্বাদে মিষ্টি ও সুস্বাদু তরমুজ ঝুলছে কৃষকের মাচায়। অসময়ের তরমুজ বলে দামও বেশ চড়া। দৃষ্টিনন্দন ও অসময়ের ফসল বলে চাহিদাও অনেক। দামও বেশ ভালো। ফলে সাতক্ষীরাতে এই হলুদ তরমুজ চাষে আগ্রহী হচ্ছে কৃষকরা।

তালা উপজেলার সেনেরগাতী ফুল বাড়ি গ্রামের কৃষক কালাম শেখ, এবারই প্রথম ৮ কাঠা জমিতে হলুদ তরমুজের চাষ করেছেন। প্রায় দুই মাস আগে একটি বেসরকারি উন্নয়ন সস্থার কাছ থেকে বীজ সংগ্রহ করে ও তাদের পরামর্শে মালচিং পেপার ব্যবহারের মাধ্যমে জমিতে বীজ রোপণ করেন তিনি। অল্প দিনেই অসময়ে তরমুজ চাষে এত সাফল্য পাবেন ভাবতে পারেনি । ফলে কালাম শেখের মুখে এখন আনন্দের হাসি।

কালাম শেখ জানান, বেড তৈরি করে মালচিং পেপারের ভেতর কেটে চারা বসিয়েছি। আর অল্প পরিচর্যা করেই অল্পদিনে গাছে তরমুজ ধরেছে। এ পর্যন্ত জমি প্রস্তুত, সার প্রয়োগ, মাচা তৈরি সুতা ও জাল বাবদ খরচ হয়েছে ৩৫ হাজার টাকার মতো। খরচ বাদে ৭০ থেকে ৭৫ হাজার টাকার তরমুজ বিক্রয় করা সম্ভব হবে বলে তিনি আশা করছেন।

তিনি জানান, অল্পদিনে ফলন পাওয়ায় একই জমিতে বছরে ৪ বার ফসল ফলানো যায়। ফুলবাড়ি গ্রামের অন্য কৃষকরাও দেখতে আসছেন তার হলুদ তরমুজ ক্ষেতটি। তার হলুদ তরমুজের বাম্পার ফলন দেখে এ অঞ্চলের অনেক কৃষক আগামীতে এই তরমুজ চাষের আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

এ বিষয়ে উন্নয়ন প্রচেষ্টার কৃষিবিদ নয়ন হোসেন জানান, হলুদ তরমুজ চাষে কৃষক আগ্রহী হওয়ার প্রধান কারণ মাত্র দুই মাসে তরমুজ বিক্রয় উপযোগী হয়ে যায়। তাছাড়া সাতক্ষীরার মাটি তরমুজ চাষের জন্য বেশ উপযোগী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.