কুমারখালীতে গণটিকার প্রথম দিনেই মানুষের উপচেপড়া ভিড়-সত্যবয়ান

কুমারখালীতে গণটিকার প্রথম দিনেই মানুষের উপচেপড়া ভিড়-সত্যবয়ান

সামরুজ্জামান (সামুন), কুষ্টিয়া:করোনা ভাইরাসের ঝুঁকিপূর্ন জেলা কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার পৌরসভা এবং ইউনিয়ন পর্যায়ে গণটিকা কার্যক্রম শুরু হয়েছে। শনিবার সকাল ৯টা থেকে উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ড মিলে মোট ২০টি কেন্দ্রে করোনার এই টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে। পৌরসভার প্রতিটি ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন পর্যায়ে ১ নাম্বার ওয়ার্ডগুলোতে এই টিকা দেওয়া হচ্ছে। ইউনিয়নের প্রতিটি কেন্দ্রে মোট তিনটি বুথে ৬ শত এবং পৌরসভার প্রতিটি ওয়াডের্র টিকা কেন্দ্রে ২ শত মানুষের টিকা দেওয়া হবে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো.আকুল উদ্দিন জানান, উপজেলায় মোট ৮ হাজার ৪শ’ জনকে টিকা দেওয়া হবে। টিকাদান কেন্দ্রগুলোতে মানুষের ব্যাপক উপস্থিতি রয়েছে। সুষ্টভাবে টিকাদান কর্মসূচি সফল করতে টিকাদান কেন্দ্রগুলোতে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এর আগে টিকা নেওয়া মানুষগুলোকে সুরক্ষা এ্যাপসের মাধ্যমে নিবন্ধনের জন্য ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও স্থানীয় আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা ব্যাপক তৎপরতা চালিয়েছে। করোনা ভাইরাসের টিকা কারা নিতে পারবেন এবং পারবেননা সেই বার্তা দিয়ে টিকা গ্রহনের কেন্দ্রে চলছে মাইকিং। এছাড়াও বয়স্ক ও প্রতিবন্ধীদের টিকা নেওয়ার ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে। মাস্ক গ্রহন ছাড়া কাউকে টিকা দেওয়া হচ্ছে না। এবং প্রত্যেক কেন্দ্রে তাৎক্ষনিকভাবে নিবন্ধনের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এছাড়া উপজেলার করোনার টিকাদান কার্যক্রম নির্বিগ্নে পরিচালনার জন্য সকাল থেকে প্রতিটি টিকাদান কেন্দ্র পরিদর্শন করছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিতান কুমার মন্ডল, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো.আকুল উদ্দিন এবং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামরুজ্জামান তালুকদার।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, চাপড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মনির হাসান রিন্টু, সাবেক চেয়ারম্যান এনামুল হক মঞ্জু, সেলিম হকসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!