পর্যায়ক্রমে খুলবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান-সত্যবয়ান

পর্যায়ক্রমে খুলবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান-সত্যবয়ান

নিজস্ব প্রতিবেদক:দীর্ঘ প্রায় দেড় বছর পর ধাপে ধাপে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার পরিকল্পনা করেছে সরকার। শিক্ষামন্ত্রণালয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে এমনই ইঙ্গিত দিয়েছে।

মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, প্রথমে বিশ্ববিদ্যালয়, স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা এবং চলতি বছর এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের বিবেচনায় স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় খোলার পরিকল্পনা চলছে। এরপর মাধ্যমিক ও নিম্নমাধ্যমিক ও‌ প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হতে পারে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মোঃ মাহবুব হোসেন বলেন, ভ্যাকসিন কার্যক্রম জোরেশোরে চলছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কবে খোলা হবে তা আগাম বলতে চাই না।‌ পরিস্থিতি যখনই অনুকূলে আসবে তখনই ঘোষণা দেয়া হবে।

জানা যায়, শিক্ষার্থীদের টিকাদান গত ৭ আগষ্ট এক অনুষ্ঠানে প্রসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জানান, সরকারি পর্যায়ের প্রায় ‘শতভাগ শিক্ষকইথ টিকা নিয়েছেন। বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের তিন লাখ ৬৩ হাজার ২২২ শিক্ষক-কর্মচারীর মধ্যে টিকা নিয়েছেন দুই লাখ ৭৮ হাজার ৪২৬ জন। বাকি আছেন প্রায় ৮৪ হাজার জন।

এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩৪ হাজারের বেশি শিক্ষক টিকার জন্য নিবন্ধন করেছেন, তাদের মধ্যে টিকা নিয়েছেন ৩০ হাজারের বেশি। আগামী চার-পাঁচ দিনের মধ্যেই সব শিক্ষকই টিকা নিয়ে নেবেন আশা করা হচ্ছে।

শিক্ষামন্ত্রী জানান, টিকার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের এক লাখ ৭৯ হাজার ২৬১ শিক্ষার্থী নিবন্ধন করেছেন। এর মধ্যে প্রথম ডোজ টিকা পেয়েছেন ৭৯ হাজার ৯১৪ জন। দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছেন ছয় হাজার ৭২ জন।

আগস্টজুড়ে টিকার বাইরে থাকা প্রায় ৮৪ হাজার বেসরকারি শিক্ষককে টিকা দেয়ার কাজ শেষ করা হবে।

এর আগে গত ৭ আগষ্ট প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন বলেন, ১৭ মাস শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় প্রাথমিক শিক্ষা বড় ধরনের ক্ষতির মুখে পড়েছে। এর আগে বারবার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত থেকে পিছু হটতে হয়েছে। করোনার এখন যে সংক্রমণ চলছে সেটা কমে আসলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে আমরা স্কুলগুলো খুলে দিতে চাই।

উল্লেখ্য, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের চলমান ছুটি আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। এরপর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর খোলার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করতে পারে সরকার। তবে সব কিছু নিভর করছে আগামী এক মাসে কত সংখ্যক শিক্ষার্থীকে ভ্যাকসিনের আওতায় আনা যায় তার ওপর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!