বুধবার বিক্ষোভ বিএনপির-সত্যবয়ান

বুধবার বিক্ষোভ বিএনপির-সত্যবয়ান

নিজস্ব প্রতিবেদক:রাজধানীর চন্দ্রিমা উদ্যানে জিয়াউর রহমানের মাজার জিয়ারত করতে আসা বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর পুলিশ নির্মম হামলা, গুলিবর্ষণ করেছে এমন অভিযোগে আগামীকাল বুধবার ঢাকার প্রতিটি থানায় প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ করবে বিএনপি।

মঙ্গলবার বিকেল তিনটায় নয়াপল্টনে ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক আব্দুস সালাম এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

আব্দুস সালাম জানান, সকাল সাড়ে ১০টায় রাজধানীর শেরে বাংলা নগরস্থ বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানাতে গেলে সেখানে দলটির নেতাকর্মীদের ওপর পুলিশ হামলা চালায়। হামলায় ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির আহ্বায়ক আমান উল্লাহ আমান, সদস্য সচিব আমিনুল হকসহ অসংখ্য নেতাকর্মী গুরুতর আহত হয়েছে। তারা রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতাল ও ক্লিনিকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এছাড়াও ঘটনাস্থল থেকে অনেক নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তারও করেছে পুলিশ।

বিএনপির এই নেতা জানান, আজকের কর্মসূচি পালনের জন্য পুলিশের কাছ থেকে অনুমতিও নেয়া ছিল। কিন্তু নেতাকর্মীরা মাজারস্থলে জড়ো হওয়ার সাথে সাথে সম্পূর্ণ বিনা উস্কানিতে নেতাকর্মীদের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে পুলিশ। এতেই বোঝা যায়, সরকারের পায়ের নিচে আর বিন্দুমাত্র মাটি অবশিষ্ট নেই। তারা ফ্যাসিবাদী কায়দায় বিরোধী দল দমনের মাধ্যমে নিজেদের ভয়াবহ দুঃশাসনকে চিরস্থায়ী রুপ দিতে মরিয়া হয়ে উঠেছে।

আব্দুস সালাম আরও জানান, নেতাকর্মীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে আগামীকাল ঢাকার সব থানায় থানায় বিক্ষোভ করা হবে।

নবগঠিত ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপি আহ্বায়ক কমিটির নেতাদের পক্ষ থেকে পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচিতে অংশ নিতে সকালে মহানগরের নেতাকর্মীরা দলের প্রতিষ্ঠাতার সমাধিস্থলে জড়ো হতে শুরু করেন। মহানগর উত্তরের আহ্বায়ক আমানউল্লাহ আমান ও সদস্য সচিব সাবেক ফুটবলার আমিনুল হকের নেতৃত্বে মিছিলসহ সমাধিস্থলে যাওয়ার সময় পুলিশ তাদের বাধা দেয়। এরপরই ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। সংঘর্ষের সময় বিএনপি নেতাকর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছোড়ে। তাদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশও কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে। সংঘর্ষে বিএনপির বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হন। তাদের মধ্যে সাবেক ফুটবলার ও ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সদস্য সচিব আমিনুল হকও রয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!