কলেজছাত্রীর স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেওয়ায় থানায় মামলা|| আওয়ামী লীগ নেতা গ্রেপ্তার-সত্যবয়ান

কলেজছাত্রীর স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেওয়ায় থানায় মামলা|| আওয়ামী লীগ নেতা গ্রেপ্তার-সত্যবয়ান

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি||মানিকগঞ্জের শিবালয়ে কলেজছাত্রীর স্পর্শকাতর স্থানে হাত ও ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে মনোরঞ্জন শীল নকুল (৫০) নামে এক আওয়ামী লীগ নেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার বিকেলে ঐ আওয়ামী লীগ নেতাকে নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। মনোরঞ্জন শীল শিবালয় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা গেছে, সম্প্রতি মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় একটি হাত ভেঙে যায় আওয়ামী লীগ নেতা মনোরঞ্জন শীল নকুলের। এজন্য প্রতিদিন কয়েকবার তার হাত মালিশ করার জন্য চিকিৎসকরা পরামর্শ দিয়েছেন। এজন্য প্রতিদিন ৩০০ টাকার বিনিময়ে প্রতিবেশি এক দরিদ্র কলেজছাত্রী এই কাজ শুরু করে। প্রতিদিনের মতো বৃহস্পতিবার দুপুরে হাত মালিশ করে দিতে নকুলের বাড়িতে যান ওই কলেজছাত্রী। এসময় নকুল জোর করে তার শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয় এবং ধর্ষণচেষ্টা করে।

ভুক্তভোগী কলেজছাত্রীর মা জানান, এ ঘটনার পর পাঁচ হাজার টাকা দিয়ে চুপ থাকতে বলেন আওয়ামী লীগ নেতা নকুল। হুমকি-ধামকি দেন। থানায় অভিযোগ দিয়েও কোনো লাভ হবে না। আমি এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই।

শিবালয় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কুদ্দুস বলেন, ঘটনা সত্য হলে দলীয় ফোরামে আলোচনা করে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শিবালয় সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) তানিয়া সুলতানা বলেন, প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা মিলেছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছেন। পরে আসামি নকুল শীলকে গ্রেফতার করা হয়। শনিবার তাকে আদালতে পাঠানো হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!