পিকাপভর্তী বইসহ জনতার হাতে আটক -সত্যবয়ান

পিকাপভর্তী বইসহ জনতার হাতে আটক -সত্যবয়ান

স্টাফ রিপোর্টার: শেরপুরের নকলায় বিক্রির উদ্দেশ্যে পাচারকালে বিনামূল্যে বিতরণের জন্য মাধ্যমিকের বিভিন্ন শ্রেণির প্রায় এক পিকআপ বই স্থানীয় জনতারা আটক করেছে। মঙ্গলবার (৯নভেম্বর) দুপুরের দিকে উপজেলার ধনাকুশা বাজার এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।

স্থানীয়সূত্র জানায়, উপজেলার ধনাকুশা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মুনসুর আলী জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের ২০২০/২০২১ সালসহ বিভিন্ন শিক্ষাবর্ষের ও বিভিন্ন শ্রেণির বই ঢাকার এক ব্যক্তির নিকট বিক্রি করে। ওই বিক্রিত বই পিকআপে করে নেওয়ার সময় ধনাকুশা বাজার এলাকায় পিকআপটি আটক করে স্থানীয়রা। পরে প্রধান শিক্ষক বিষয়টি জানতে পেরে অন্যান্য শিক্ষক ও কর্মচারীর মাধ্যমে পিকআপ থেকে বই নামিয়ে স্কুলের কক্ষে নিয়ে যায়। তাৎক্ষনিক স্থনীয় জনতা প্রধান শিক্ষক মুনসুর আলীর বিরোদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল করেন।

ধনাকুশা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মুনসুর আলী বলেন, পুরাতন কিছু বই খাতা (ব্যবহারের অনুপযোগি) বিক্রি করার উদ্যেশে পিকআপে তোলা হয়েছিল। স্কুলের একটি কক্ষে এসব পরে আছে অনেকদিন যাবৎ। সামনে নতুন বই আসবে তাই কক্ষটি খালি করা প্রয়োজন। এই ভেবেই এসব পিকআপে ভরা হইছিল। স্থানীয়রা বাধা দিলে এসব আবার স্কুলের কর্মচরীদের মাধ্যমে নামিয়ে রাখা হইছে। যথাযথা কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে নিয়ম অনুযায়ী পরবর্তীতে এসব পুরাতন বই খাতা বিক্রি করা হবে।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোহাম্মদ আব্দুর রশিদ জানান, বিষয়টি আমি শুনেছি। এভাবে বই বিক্রি করাটা অন্যায় এবং কোন স্কুলের শিক্ষক চাইলেই এভাবে বই বিক্রি করতে পারবে না। উপজেলায় একটি কমিটি আছে। সেই কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী নিলামের মাধ্যমে এসব পুরাতন বা ব্যবহার অনুপযোগি বই বিক্রি করতে হবে। আর বিক্রিত সেই টাকা স্কুলের বা সরকারি তহবিলে জমা দিতে হবে। এই নিয়মের বাইরে যদি কেউ বই বিক্রি করে সেটা অন্যায় এবং বেআইনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!