ঝিনাইগাতীতে শ্বশুর বাড়ী বেড়াতে এসে পুকুরের পানিতে ডুবে জামাইয়ের মৃত্যু||সত্যবয়ান

ঝিনাইগাতীতে শ্বশুর বাড়ী বেড়াতে এসে পুকুরের পানিতে ডুবে জামাইয়ের মৃত্যু||সত্যবয়ান

মুহাম্মদ আবু হেলাল, শেরপুর প্রতিনিধি: শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে এসে পুকুরের পানিতে ডুবে সুমন মিয়া (২৫) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। ৭ অক্টোবর শুক্রবার দুপুরে উপজেলা সদর ইউনিয়নের কোনাগাঁও গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সুমন উপজেলার কাংশা ইউনিয়নের উত্তর গান্দিগাও বহেরাতলী গ্রামের হাফিজুর রহমানের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়দের সুত্রে জানা গেছে, আনুমানিক গত দুই মাস পুর্বে কোনাগাঁও গ্রামের মিষ্টার আলীর মেয়ে মিষ্টি আক্তারের সাথে সুমনের বিয়ে হয়। গত কয়েকদিন আগে সুমনের স্ত্রী মিষ্টি আক্তার বাবার বাড়ীতে বেড়াতে আসে। গত ৫ অক্টোবর বুধবার সুমন তার শ্বশুর বাড়িতে যায়। শুক্রবার দুপুর ১ঘটিকার দিকে সুমন মিয়া, ভায়রা ভাই সোহেল(২৬) ও শ্যালক রেজাউল সহ বাড়ীর সামনে পুকুরে গোসল করতে নামে। এসময় পুকুরে সাতার দেয়ার সময় হঠাৎ সুমন পানিতে ডুবে নিখোঁজ হয়। এমতাবস্থায় বাড়ীর লোকজন সুমনকে খোঁজতে পুকুর পাড়ে আসলে পুকুরের পানিতে সুমনের মৃতদেহ ভেসে উঠে। এসময় দ্রুত সুমন মিয়ার লাশ উদ্ধার করে।
খবর পেয়ে ঝিনাইগাতী থানার ওসি (তদন্ত) আবুল কাসেম, এসআই মাসুদ রানা, দুলাল মিয়া সহ সঙ্গীয় পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
উল্লেখ্য যে, সুমন ও মিষ্টি স্বামী-স্ত্রী সর্ম্পক ছাড়াও তারা মামাতো -ফোফাতো ভাই বোন।

এ বিষয়ে সত্যতা নিশ্চিত করে ঝিনাইগাতী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মনিরুল আলম ভূইয়া বলেন, উভয় পক্ষের কোন আপত্তি না থাকায় এবং লিখিত দেয়ায় ইউডি মামলা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.