শেরপুরে শতকোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণ হবে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং সেন্টার: পলক

শেরপুরে শতকোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণ হবে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং সেন্টার: পলক

স্টাফ রিপোর্টার|| শেরপুরে ১০০ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রায় ৫ একর জায়গায় একটি শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এ্যান্ড ইনকিউবেটর সেন্টার নির্মাণ কাজ শুরু হবে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। তিনি ১৯ অক্টোবর বুধবার রাতে শেরপুরের সার্কিট হাউজে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ওই কথা জানান।

তিনি আরও বলেন, সরকার ফ্রিল্যান্সারদের জন্য সকল সুবিধা নিশ্চিত করতে কাজ করছে। আপনারা জানেন নালিতাবাড়ী প্রত্যন্ত গ্রাম থেকে শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশের কল্যাণে বিদ্যুৎ ও ইন্টারনেটের সুবিধা নিয়ে তৃষ্ণা দিও নামে একটি মেয়ে অনলাইন মার্কেটপ্লেসে ফ্রিল্যান্সিং করে হাজার হাজার ডলার আয় করছে। তবে সে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ ও উচ্চগতির ইন্টারনেট আর সহজলভ্য করার বিষয়ে আমাকে জানিয়েছে। ইতোমধ্যে আইসিটি বিভাগের ইনফো সরকার-৩ প্রজেক্টের মাধ্যমে কাকরকান্দি ইউনিয়ন পরিষদ থেকে উচ্চ গতির ইন্টারনেট সংযোগ তার বাড়ি পর্যন্ত দেওয়া হয়েছে। আর বিদ্যুতের বিষয়টি এখন আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানির মূল্য বৃদ্ধির কারণে একটু সমস্যা হচ্ছে। আশা করছি দ্রুত এটিও ঠিক হয়ে যাবে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী বলেন, এছাড়া আমরা হার পাওয়ার নামে একটি প্রকল্প হাতে নিয়েছি, যেটির মাধ্যমে ২৫ হাজার নারীকে প্রশিক্ষণ দিয়ে উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তোলা হবে। এখানেও শেরপুরের প্রত্যেকটি উপজেলা থেকে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক নারী উদ্যোক্তা থাকবেন বলে আশা করছি।
পলক বলেন, নালিতাবাড়ীর পাশাপাশি শেরপুরের অন্যান্য উপজেলাতে ‘জয় ডি-সেট সেন্টার’ স্থাপন করা হবে। পাশাপাশি সারাদেশের মতো শেরপুরেও বিদ্যালয়ে বিদ্যালয়ে শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে, যেটি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সম্প্রতি উদ্বোধন করেছেন। এছাড়া শেরপুরে দুটি ‘স্কুল অব ফিউচার’ উদ্বোধন করা হয়েছে। সেখানে ইংরেজি ও অঙ্ক শিক্ষা বিশেষ পদ্ধতিতে দেওয়া হবে। এটিও দ্রুত শুরু হবে। সুতরাং শেরপুরের জন্য প্রধানমন্ত্রী অনেক কিছুই উপহার দিচ্ছেন।
এসময় জেলা প্রশাসক সাহেলা আক্তার, পুলিশ সুপার মো. কামরুজ্জামান, জেলা প্রশাসন পুলিশ বিভাগ রাজনৈতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.