শেরপুরে শিল্প ও বাণিজ্য মেলার উদ্বোধন করলেন হুইপ আতিক

শেরপুরে শিল্প ও বাণিজ্য মেলার উদ্বোধন করলেন হুইপ আতিক

স্টাফ রিপোর্টার: শেরপুরে বিনোদনের ভিন্নমাত্রা নিয়ে যাত্রা শুরু করলো শিল্প ও বাণিজ্য মেলা। শেরপুর জেলা শহরের শহীদ দারোগ আলী পৌর পার্ক মাঠে শেরপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির আয়োজনে ১৩ জানুয়ারি শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে ফিতা কেটে মাসব্যাপী মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়েছে। মেলার প্রধান ফটক নির্মিত হয়েছে রাজকীয় ফটকের আদলে।
শেরপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি আলহাজ্ব আসাদুজ্জামান রওশনের সভাপতিত্বে ও পরিচালক অজয় চক্রবর্তী জয়’র সঞ্চালনায় মেলা প্রাঙ্গণে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের হুইপ বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মো. আতিউর রহমান আতিক এমপি। এসময় তিনি বলেন, আমরা সুষ্ঠু ও সুন্দর বিনোদনের মাধ্যমে শেরপুরটাকে সামনের দিকে এগিয়ে নিতে যেতে চাই।
বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন শেরপুর পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব গোলাম মোহাম্মদ কিবরিয়া লিটন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুকতাদিরুল আহমেদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোহাম্মদ আবু বকর সিদ্দিক, শেরপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সিনিয়র সহ-সভাপতি প্রকাশ দত্ত, পৌর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হাসান উৎপল।
এসময় শেরপুর জেলা আওয়ামী লীগ সাবেক সহ-সভাপতি ফখরুল মজিদ খোকন, সাবেক সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক মো. আনিসুর রহমান, সাবেক দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন, সাবেক উপ-দপ্তর সম্পাদক বিনয় কুমার সাহা, সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বছির আহমেদ বাদল, শেরপুর জেলা জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান নাসরিন বেগম ফাতেমা, সদর উপজেলা পরিষদ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সাবিহা জামান শাপলা, জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক তারিকুল ইসলাম ভাসানী, শেরপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সহ-সভাপতি আলহাজ্ব আরিফ হোসেন, পরিচালক মনির উদ্দিন আহমেদ, মো. খুরশিদ আলম মিঠু, নির্মল সাহা, সহ সচিব তন্ময় বণিক, শেরপুর প্রেসক্লাব সভাপতি মো. শরিফুর রহমান, সাবেক সভাপতি এডভোকেট রফিকুল ইসলাম আধার, সাধারণ সম্পাদক মো. মেরাজ উদ্দিন, শেরপুর সাংবাদিক ইউনিয়ন সভাপতি মানিক দত্ত, সাধারণ সম্পাদক আদিল মাহমুদ উজ্জল, শেরপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির অন্যান্য নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, ব্যবসায়ীবৃন্দ, মেলা পরিচালনা কমিটির নেতৃবৃন্দ ও উদ্যোক্তাগণসহ বিপুল সংখ্যক দর্শনার্থী উপস্থিত ছিলেন।
উদ্বোধনের পরই আতশবাজি উৎসব মেলা প্রাঙ্গণকে মাতিয়ে তোলে। আকর্ষণ করে দর্শনার্থীদের। মেলায় থাকছে ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পের বিভিন্ন স্টল, দেশীয় প্রসিদ্ধ বিভিন্ন কোম্পানির প্যাভিলিয়ন, সাধারণ স্টল, শিশুদের বিনোদনমূলক রাইডস ও খাবারের দোকানসহ জমজমাট আয়োজন দর্শণার্থীদের নজর কাড়বে। মেলায় বেশ ভিন্নতা এসেছে। ডিজিটাল নাগরদোলা, ইলেকট্রিক নৌকা, ডিজিটাল ট্রেন সহ শিশুদের জন্য মেলায় বাড়তি বিনোদনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। আনা হয়েছে উন্নতমানের ব্যতিক্রমী হরেক রকমের রাইডস। এছাড়াও দর্শণার্থীদের সুবিধার্থে মেলা প্রাঙ্গণে তৈরী করা হয়েছে অস্থায়ী নামাজ আদায় কেন্দ্র ও শৌচাগার। মেলা ঘিরে পুরো মাঠকে বর্ণিল সাজে সাজানো হয়। নান্দনিক সাজ ও আলোর ফোয়ারায় সাজিয়ে তোলা হয় মেলা প্রাঙ্গণ। উদ্বোধনের দিন মেলা চত্বরে দর্শনার্থী ও ক্রেতাদের উপচে পড়া ভীড় লক্ষ্য করা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.