ঝিনাইগাতীতে ভুয়া কাগজে দলিল সম্পাদনের চেষ্টায় আমির সরকারকে সাময়িক বরখাস্ত:সত্যবয়ান

ঝিনাইগাতীতে ভুয়া কাগজে দলিল সম্পাদনের চেষ্টায় আমির সরকারকে সাময়িক বরখাস্ত:সত্যবয়ান

মুহাম্মদ আবু হেলাল, ঝিনাইগাতী সংবাদদাতা: শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলা সাব রেজিস্ট্রি অফিসের দলিল লেখক মো. আমির হোসেনকে ভুয়া কাগজে দলিল সম্পাদনের চেষ্টা করায় তাকে সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করেছেন, সাব রেজিস্ট্রার মো. হযরত আলী। ১৯ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার সকালে তাকে সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করা হয়। সাময়িক ভাবে বরখাস্তকৃত আমির হোসেন উপজেলার কাংশা ইউনিয়নের গান্ধিগাঁও গ্রামের মৃত তৈয়মদ্দিনের ছেলে। যাহার লাইঃ নং-১৬২।

উপজেলা সাব রেজিস্ট্রি অফিস সুত্রে জানা গেছে, গত কয়েকদিন আগে উপজেলার হলদীগ্রাম এলাকার জৈনক এক ব্যক্তি তার একটি দলিল সম্পাদনের কাজ দেন সরকার আমির হোসেনকে। সরকার আমির হোসেন ওই দলিলটি সম্পাদনের জন্য গত বুধবার ভুয়া দাখিলা সহ অন্যান্য কাগজপত্রাদি সমেত সাব রেজিস্ট্রার মো. হযরত আলীর সন্মুখে উপস্থাপন করেন।
সাব রেজিস্ট্রার মো. হযরত আলী উক্ত দলিলের সাথে ভুয়া দাখিলা ও অন্যান্য কাগজপত্র দেখে দলিলটি সম্পাদন না করে স্থগিত করেন। পরবর্তীতে বৃহস্পতিবার সকালে ভুয়া কাগজপত্রের বিষয়ে শতভাগ নিশ্চিত হয়ে সাব রেজিস্ট্রার মো. হযরত আলী উক্ত দলিল স্থগিত সহ লিখিত ভাবে সরকার আমির হোসেনকে সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করেন। এ বিষয়কে কেন্দ্র করে একটি পক্ষ ঘটনাটি ধামাচাঁপা দেয়ার চেষ্টা করছে। কথিত আছে, সরকার আমির হোসেন জালিয়াতির উস্তাদ।

এ ব্যাপারে সরকার আমির হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ প্রতিনিধিকে বলেন, ” দলিল দাতার কাগজের আলোকে আমি দলিল সম্পাদনের কাজ করেছি। ভুয়া দাখিলা ও অন্যান্য কাগজের বিষয়ে আমার জানা নেই।

উপজেলা সাব রেজিস্ট্রার মো. হযরত আলী এ বিষয়ে সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ভুয়া কাগজপত্রাদি দিয়ে দলিল সম্পাদনে চেষ্টার অপরাধে সরকার আমির হোসেনকে সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করেছি। পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.